Books By Authorইংরেজি শেখার বই PDF Download

(All) মুনজেরিন শহীদ এর বই pdf download | Munzereen Shahid Book pdf download free

আজকে আপনাদের অনুরোধের বই মুনজেরিন শহীদ এর বই pdf download | Munzereen Shahid Book pdf download free লিংক নিয়ে এলাম।

মুনজেরিন শহীদ এর বই pdf download | Munzereen Shahid Book pdf download free

ঘরে বসে স্পোকেন ইংলিশ মুনজেরিন শহীদ PDF Download | Ghore boshe spoken english PDF Download

সবার জন্য ভোকাবুলারি মুনজেরিন শহীদ PDF Download | Sovar jonno vocabulary munzereen shahid PDF Download

থ্রিলার বললেই সবার প্রথমে আমাদের মাথায় আসে নামকরা ইংলিশ কিছু বই এবং লেখকের নাম। সম্প্রতি বাংলা সাহিত্যেও বেশ কিছু থ্রিলার লেখকদের আগমন ঘটেছে যাদের বই আমরা পড়ে থাকি। কিন্তু আমার মতো এসব থ্রিলার পাঠকদের অধিকাংশই জানেনা, অনেক বছর আগেই বাংলা সাহিত্যে এই ঘরানার আগমন ঘটেছে। তেমনই এক টান টান উত্তেজনাময় থ্রিলার পড়ে ফেললাম গতকাল রাতে। আমি খুঁজে বের করতে পারিনি বইটার প্রকাশকাল। তবে আমার ধারণা সেটা ৯০ দশক হতে পারে। সেসময়ের এমন একটা থ্রিলার, জাস্ট ভাবা যায়না।
বইয়ের নামঃ কালো বেড়াল, সাদা বেড়াল
লেখকঃ শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়
রকমারি মূল্য : ৳ ৩৮০ (অরিজিনাল)
প্রকাশনী : আনন্দ পাবলিশার্স (ভারত)
ঘরানা : রহস্য, গোয়েন্দা, থ্রিলার
ঘটনার শুরু কলকাতায়।
মনোজ সেন আর তার ওয়াইফ রোজমারি জার্মানি থেকে কলকাতায় এসে একটা কারখানা খোলে। সেখানের তৈরি এক ধরণের ইন্ড্রাস্ট্রিয়াল আ্যালয় তারা বিভিন্ন দেশে বিক্রি করে। মনোজ সেন সরল সোজা হলেও রোজমারি দারুণ বুদ্ধিমতী। মূলত তার বুদ্ধিতেই চলছে গোটা ব্যবসা।
ফরাসি ডেলিগেটদের একটা দল তাদের কারখানা ভিজিট করতে আসার কিছুক্ষণ আগে ইন্টারপোল থেকে আসা এক লোক মনোজকে দেয় এক অদ্ভুত খবর। ডেলিগেটদের দলে নাকি আছে এক ইন্টারন্যাশনাল ক্রিমিনাল, যাকে সে আইডেন্টিফাই করতে চায়। তার জন্য সে মনোজের এসিস্ট্যান্ট হিসেবে সেই সময়টাতে তার সাথে থাকতে চায়। ব্যাপারটা পছন্দ না হলেও ইন্টারপোল বলে রাজি হয়ে যায় মনোজ।
এদিকে সেই ফরাসি ডেলিগেটরা তাদের ভিজিট ক্যান্সেল করে দেয় কারণ তাদের একজন সদস্য হার্ট এটাকে মারা গেছে। ইন্টারপোল এর সেই লোক, যার নাম সুধাকর দত্ত, সে কিন্তু এই খবরে মোটেও বিচলিত হয়না, যেন এটা হওয়ারই ছিলো।
সেদিনই রোজমারিকে পাঠানো হয় একটা লাল গোলাপের তোড়া, যাতে বার্থডে উইশ করা। কিন্তু রোজমারির জন্মদিন সেদিন ছিলোনা। আবার উইশ কার্ডের পেছনে লেখা RIP, যার অর্থ রোজমারি করে ‘রেস্ট ইন পিস’। কিন্তু তার তো কোন শত্রু নেই, তাহলে এমন মজা কে করলো?
সেদিন রাতে ফোন বাজে প্যারিসে গোপীনাথ বসুর ঘরে। ভিকিজ মব নামে এক আন্তর্জাতিক অপরাধ সংস্থা তাকে দিতে বলে এক গুরত্বপূর্ণ প্রোজেক্ট এর ব্লুপ্রিন্ট। এই প্রোজেক্ট এর মূল কর্তা আঁদ্রে, যার ব্যবস্থা তারা করে ফেলেছে। এখন গোপীনাথ বসু তাদের কথামতো না চললে তার অবস্থাও আঁদ্রের মতো হবে। গোপীনাথ খোঁজ নিয়ে জানতে পারে আঁদ্রে কলকাতায় হার্ট এটাকে মারা গেছে। কিন্তু গোপীনাথ ভয় পেয়ে বিশ্বাসঘাতকতা করার পাত্র নয়। এদের হাত থেকে সেই গুরুত্বপূর্ণ ব্লুপ্রিন্ট বাঁচাতে ছুটে যায় রোমে। সেখান থেকে সেগুলো নিয়ে আসে নিজের জিম্মায়। এতে আবার তার নিজ কোম্পানি সাক্কি তাকে অবিশ্বাস করে বসে। তারা ভেবে নেয়, গোপীনাথ সেগুলো ভিকিজ মবকে দেয়ার জন্যই নিয়েছে। তাই তারা এবার গোপীনাথ কে মারার জন্য মাফিয়া লাগিয়ে দেয়।
একদিকে ভিকিজ মব, একদিকে মাফিয়া, আরেকদিকে আবার সুধাকর দত্ত। গোপীনাথ হয়ে পড়ে দিশেহারা। কে শত্রু আর কে বন্ধু ভাবতে ভাবতেই কাহিনি ঘটতে থাকে একের পর এক।আর এটা এমনই এক মিস্ট্রি, যা শেষ পাতা পর্যন্ত কিছুতেই ধরতে পারবেননা।
আমার কথাঃ
দারুণ ছিলো। গতকাল আমার মাথাটা বিভিন্ন কারণে একটু আউলাঝাউলা ছিলো। সেগুলো থেকে বাঁচতে শুরু করলাম বই পড়া। আগে অল্প পড়ে রেখেছিলাম, কিন্তু কালকে বাকিটা মোটামুটি এক টানেই শেষ করেছি। মাঝে একটা জিনিস আগেই বুঝতে পেরে দারুণ আনন্দ হচ্ছিলো। তবে থ্রিলার পড়ে পড়ে এমন বদভ্যাস হয়েছে, একটা চরিত্রকেও আর বিশ্বাস করতে ইচ্ছে হয়না। হে হে, এই জিনিসটা খুব মজা দিয়েছে বইটাতে। যখন আমি প্রত্যেককে সন্দেহ করছি, তখন লেখক খুবই সুন্দর একটা কনক্লুশন টেনেছেন। সুব্রত চরিত্রটা খুব ভালো ছিলো এই বইয়ের। প্রত্যেক মানুষের জীবনে এমন একজন মানুষ থাকা দরকার। আউলা ঝাউলা মাথা নিয়ে পড়ার কারণে রেট করলাম না। কারণ অনেক কিছুই মাথায় ঢুকছিলোনা। ঠান্ডা মাথায় পড়লে আরো অনেক বেশি মজাপেতাম, এটা নিশ্চিত। (মনে হচ্ছে রিভিউটাও একটু আউলা ঝাউলা হয়ে গেছে, স্যরি ফর দ্যাট)
হ্যাপি রিডিং!

See also  (All) ডা: শামসুল আরেফিন বই PDF Download | Shamsul Arefin books Pdf Download

নাটকের চরিত্রের ফাঁসি ঠেকাতে বাস্তবে আন্দোলন।

.
‘বাকের ভাইয়ের কিছু হলে জ্বলবে আগুন ঘরে ঘরে’, মিছিলে জনস্রোত । নব্বইয় দশকের শুরুর দিকে নন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত ‘কোথাও কেউ নেই’- নাটকের প্রধান চরিত্র বাকের ভাইকে ফাঁসি না দেবার দাবি জানিয়ে এই মিছিল হয়।
বাকের ভাইয়ের মুক্তি চাই, বাকের ভাইয়ের কিছু হলে জ্বলবে আগুন ঘরে ঘরে স্লোগান
দিতে দিতে নাটকের ডিরেক্টর হুমায়ূন আহমেদের বাড়িতে উত্তেজিত দর্শক ঢিল মারে।
বাকের ভাইকে বাঁচানোর দাবিতে মিছিল-দেয়াল লিখন-সমাবেশ সবই হলো। কিন্তু শেষপর্যন্ত গল্পের যবনিকা টানতে গিয়ে বাকের ভাইকে ঝুলতে হলো ফাঁসিতে।
রমনা থানায় নিরাপত্তা চাইতে হয়েছিল নাট্যকার হুমায়ূন আহমেদ এবং এর প্রযোজককেও। বাকের ভাইয়ের বিরুদ্ধে যিনি মিথ্যা সাক্ষী দিয়েছিলেন তার জীবন হুমকির মুখে পড়ে, তার বাড়ির সামনে মিছিল হয় পোস্টারিং হয়।
শুধু তাই না, বাকের ভাইয়ের ফাঁসি কার্যকরের পর তার কুলখানিও করলো অনেকে।
একটি টিভি নাটক নিয়ে যে আন্দোলন গড়ে উঠতে পারে, তার দৃষ্টান্ত তৈরি করলেন হুমায়ূন আহমেদ। বাকের ভাই চরিত্রে আসাদুজ্জামান নূর এখনও হয়ে আছেন মার্কা মারা। নাটকটি প্রচারের প্রায় দুই দশক পর আসাদুজ্জামান নূর যখন সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হলেন, তাকে সামনে রেখে বাকের ভাইয়ের নাম ধরেই নীলফামারীতে ভোট চাওয়া হয়েছে এবং মানুষ বাকের ভাইকে প্রত্যাখ্যান করেন নি। চরিত্র সৃষ্টিতে এমনই এক নিপুণ কারিগর ছিলেন হুমায়ূন আহমেদ।
.
বাকের ভাইয়ের মৃত্যুদিনে চ্যানেল আই অনলাইনের মুখোমুখি হয়েছিলেন মিথ্যা সাক্ষী দাতা ‘কোথাও কেউ নেই’-এর বদি ভাই খ্যাত অভিনেতা আব্দুল কাদের। তিনি বলেন বাকের ভাইয়ের ফাঁসির ঘোষণার পর তৎকালীন সময়ে মানুষের প্রতিক্রিয়া কেমন ছিলো জানিয়ে তিনি বলেন, বাকের ভাইয়ের ফাঁসি হওয়ার ঘোষণাতেই মানুষ মারাত্মক ক্ষেপে গিয়েছিলো। ফাঁসির রায় কার্যকরের পনেরোদিন আগে থেকেই রাজপথে মিছিল করেছিলো উত্তেজিত জনতা, যেন বাকের ভাইয়ের ফাঁসি না দেয়া হয়। স্লোগান ছিলো এরকম,‘বাকের ভাইয়ের ফাঁসি হলে, জ্বলবে আগুন ঘরে ঘরে।’ ‘বাকের ভাইয়ের ফাঁসি কেন, জবাব চাই।’
বাকের ভাইয়ের বিরুদ্ধে সাক্ষী দেয়ার অপরাধে নিজের বিরুদ্ধেও জনতার স্লোগান শুনতে হয়েছিল জানিয়ে এই অভিনেতা বলেন,আমিতো সাক্ষী ছিলাম। তো আদালতে সাক্ষী দেয়ার আগে আমার নামেও মিছিল বের হয়। অবশ্য আমাকে মিছিলে রীতিমত হুমকিই দেয়া হতো। আমাকে উদ্দেশ্য করে এরকম স্লোগান দিত,‘বদি তুমি সাক্ষি দিলে ভাসবে তুমি খালে বিলে।’ এমনকি আমার বাসার সামনেও পোস্টার ছাপা হয়।
বাকের ভাইয়ের ফাঁসির দিনে দেশের অবস্থার কথা বর্ণনা করে বদি খ্যাত আব্দুল কাদের আরো বলেন, চারদিকে যখন বাকের ভাইয়ের পক্ষে মিছিল স্লোগান,তখন আমরা সবাই একসঙ্গে বসে এসব বিষয় নিয়ে আলোচনা করতাম। আমরা হুমায়ূন ভাইকে বলতাম যেন বদির ফাঁসি না হয়। কিন্তু হুমায়ূন ভাই দুষ্টুমি করতেন। তিনি ভাষণের মত বলতেন, বাকেরের ফাঁসি কেউ আটকাতে পারবে না। বিশ্বাস করবেন না, যেদিন বাকের ভাইয়ের ফাঁসি হয়, সেদিন সন্ধ্যার পর থেকেই সারা শহর রীতিমত শ্মশান হয়ে যায়। সবাই টিভির সামনে বসে যায় এদিন। দেশে একেবারে কারফিউয়ের মতো অবস্থা ছিলো।
বাকের ভাইয়ের ফাঁসি হওয়ার পরের অবস্থা জানিয়ে এই অভিনেতা বলেন, যেদিন বাকের ভাইয়ের ফাঁসি হলো সেদিন হুমায়ূন ভাই নিজের বাসায় থাকলেন না। অন্য কোথাও ছিলেন। তার বাসা ঘিরে ফেলেছিলো মানুষ। আমি সাক্ষী দিয়েও বিপদে পড়লাম। বাকের ভাইয়ের ফাঁসির পর আমার বাসায় ফোন আসতে থাকলো। হুমকি দিলো আমাকে। বললো রাস্তায় বেরুলে আমার গাড়ি ভেঙে ফেলবে। একটা নাটক নিয়ে এমন উন্মাদনা ছিলো মানুষের মধ্যে।
.
হুমায়ূন আহমেদের মা আয়শা ফয়েজ বললেন, ‘বাবা, বাকের ভাইয়ের ফাঁসিটা না হয় না ই দিলি।
হুমায়ূন বলেন, ‘না মা, নাটকের শ্যুটিং শেষ,
কোনক্রমেই আর স্ক্রিপ্ট বদলানো যাবে না।
বাকের ভাইয়ের ফাঁসি হয়ে গেল!’
আমার জানা নেই, পৃথিবীর ইতিহাসে কোন নাটক,
সিনেমা ইত্যাদির কোন চরিত্রের জন্য
বাস্তবে আন্দোলন হয়েছিল! কারণ সেখানে কোন হুমায়ূন আহমেদ নেই, যার চরিত্রগুলো জীবন্ত ছিলো, সেখানে কোন বাকের ভাই
নেই, হিমু নেই, মিসির আলি নেই।
আর এখন বাঙালিদের জিবন মানে জি বাংলা! বই মানে ইংলিশ রাইটারদের থ্রিলার বাংলা অনুবাদ, ফিল্ম মানে হলিউড। গান মানে ইংলিশ হিন্দি, আইডল মানে সালমান মুক্তাদির তাহসিনেশনরা ( তথ্য গুলো ফেইসবুক গুগল সহ বিভিন্ন জায়গা থেকে সংগ্রহীত, অবিশ্বাস হলে গুগলে শুধু বাকের ভাই লিখে search দিবেন )
.
বি:দ্র: ‘কোথাও কেউ নেই’ উপন্যাসটি ক’দিন আগে পড়েছি, বইটা শেষ করে বাকের ভাইয়ের জন্য বুকে চাপা একটা জমাট কষ্ট অনুভব হয়েছে। যারা বইটা পড়তে চান সংগ্রহ করতে পারেন অথবা কমেন্টে জানাবেন পিডিএফ লিংক দেব।☺

See also  (New) Muhammed Zafar Iqbal Books PDF Free Download | মুহম্মদ জাফর ইকবালের বই PDF Download

আপনাদের অনুরোধের বই মুনজেরিন শহীদ এর বই pdf download | Munzereen Shahid Book pdf download free লিংক দিয়েছি। আশা করি আপনারা খুশি হয়েছেন।

ADR Dider

This is the best site for all types of PDF downloads. We will share Bangla pdf books, Tamil pdf books, Gujarati pdf books, Hindi pdf books, Urdu pdf books, and also English pdf downloads.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
You cannot copy content of this page