Math Books PDF

(All) গণিত শেখার বই PDF Download | Bengali Mathematics Book PDF Download

হ্যালো জনগন। আজকে আমরা আপনাদের কে আপনাদের অনেক অনুরোধের বই গণিত শেখার বই PDF Download | Bengali Mathematics Book PDF Download লিংক দিবো।

গণিত শেখার বই PDF Download | Bengali Mathematics Book PDF Download

1. গণিত জগতের বিস্ময় রামানুজন – সত্যবাচী সর

2. গণিতশাস্ত্রের ইতিহাস – কাজী মোতাহার হোসেন

3. গনিতের জন্মকথা

4. নিমেষে অংক – চঞ্চল ঘোষ

5. গনিতের রঙ্গে হাসিখুশি গণিত – চমক হাসান

6. নিমিখ পানে : ক্যালকুলাসের পথ পরিভ্রমণ – চমক হাসান

7. অঙ্ক ভাইয়া – চমক হাসান

8. গনিত করব জয় – তামিম শাহরিয়ার সুবিন, তাহমিদ রাফি

9. গণিত নিয়ে মজার খেলা – শুভ্র শ্যাম

10. গণিতের মজা মজার গণিত – মুহম্মদ জাফর ইকবাল

11. গণিত ও কম্পিউটারের বিস্ময় – অপরেশ বন্দ্যোপাধ্যায়

12. গণিত আকাশের উজ্জ্বল তারকাপুঞ্জ

13. গণিতের জাদু – আব্দুল কাইয়ুম

14. অংকে অংকে আই কিউ

15. জাদুগণিত – বীরেন্দ্রকুমার বন্দ্যোপাধ্যায়

16. অংকের ধাঁধা – ইয়াকভ পেরেলমান

17. ৫০৫ গাণিতিক কুইজ – জোবাইর ফারুক

18. গনিতাঙ্ক – শাহরিয়ার কবির

19. কলনবিলাস (ক্যালকুলাস শিক্ষায় বিলাসিতা) – মোহাম্মাদ জিশান

20. সহজ ক্যালকুলাস – মুহম্মদ জাফর ইকবাল

21. Neurone Onuronon (নিউরনে অণুরণন – মুহম্মদ জাফর ইকবাল)

22. Neurone Abaro Onuronon (নিউরণে আবারো অণুরণন – মুহম্মদ জাফর ইকবাল)

Mathematics Academic Books And Study Materials

23. ওরাকল বিসিএস প্রিলিমিনারি গাণিতিক যুক্তি

24. ওরাকল বিসিএস প্রিলিমিনারি গাণিতিক যুক্তি ও মানসিক দক্ষতা

25. প্রফেসর’স গণিত স্পেশাল (বিসিএস সহ বিভিন্ন MCQ নিয়োগ পরীক্ষার অজস্র গণিত প্রশ্ন বিশ্লেষণ)

26. প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার গণিত বিষয়ের সাজেসান ও সমাধান

27. Saifurs Math

28. সহস্র গাণিতিক সূত্র – সৌমেন সাহা

29. এস এস সি উচ্চতর গনিত

30. কম্বিনেটরিক্স গণিতের মজার দুনিয়া

31. গণিত – মনে রাখার কিছু গুরুত্বপূর্ণ গাণিতিক বিষয়

32. ৯ম ১০ম শ্রেনির সাধারণ গণিত সম্পূর্ণ সমাধান

33. ৩৫তম লিখিত বিসিএস গাণিতিক যুক্তি – ওরাকল পাবলিকেশন্স

34. মাধ্যমিক উচ্চতর গণিত পাঞ্জেরী গাইড

35. Applied Mathematics – ব্যবহারিক গণিত

36. ৬ষ্ঠ শ্রেণির গণিত বইয়ের সমাধান

37. ৭ম শ্রেণির সৃজনশীল গণিত বইয়ের সমাধান

38. একের ভিতর সব – প্রাথমিক গণিত, প্রাথমিক বিজ্ঞান লেকচার গাইড চতুর্থ শ্রেণি

39. Math Hour – বিন্যাস ও সমাবেশ

40. MATH – Algebra Short Techniques And Formulas

41. MATH – Geometry Short Techniques And Formulas

42. উচ্চতর গণিত প্রথম পত্র – এস ইউ আহাম্মদ, এম এ জব্বার

43. Higher Math Nine-Ten (Chapters Related to BCS Preli Syllabus)

44. উচ্চতর গণিত নবম দশম+বিসিএস

See also  (All) Chamok hasan books pdf download | চমক হাসানের বই pdf download

45. Khairul’s Basic Math [148MB]

46. Khairul’s Advanced Math

47. উচ্চতর গণিত প্রথম পত্র সমাধান একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেনি

48. ৮ম শ্রেণীর সৃজনশীল গণিতের সম্পূর্ণ সমাধান

বই : দ্য পারফেক্ট মার্ডার
মূল : পিটার জেমস
রূপান্তর : রাফায়েত রহমান রাতুল
জনরা : মার্ডার মিস্ট্রি
পৃষ্ঠা : ৯৬
মুদ্রিত মূল্য : ১২০ টাকা
রেটিং : ৪.৫/৫
ভিক্টর স্মাইলি আর তার স্ত্রী জোয়ানের দাম্পত্য জীবনের কেটে গেছে প্রায় বিশ বছর। এ সময়ের প্রায় পুরোটাই বিরক্তি আর তিক্ততা দিয়ে ভরা। যেখানে দুটো বাচ্চা নিয়ে দুজনের সুখে-শান্তিতে থাকার কথা ছিলো সেখানে দুজনের প্রতি দুজনের রয়েছে সীমাহীন ঘৃণা।
ছোটখাটো এক চাকরিজীবি ভিক্টর স্মাইলির উপর তার স্ত্রী জোয়ানের অভিযোগের শেষ নেই। ভিক্টর স্মাইলির বিদঘুটে নাকডাকা’র শব্দ জোয়ারের জীবন অতিষ্ট করে তুলেছে। অপর দিকে ভিক্টর স্মাইলি তার স্ত্রীকে নিয়ে কোনো ভাবেই সন্তুষ্ট নয়। জোয়ারের বাজে খরচ ভিক্টর স্মাইলি’কে পথে বসাতে চাচ্ছে।
এই অদ্ভুত দম্পতি অনেক’টা জোর করেই একে অপরের সাথে বসবাস করছে। নিঃসন্তান এই দম্পতি দুজন দুজনকে নিয়ে যে একেবারেই সুখী নয় তা বলাই বাহুল্য। তাই ভিক্টর স্মাইলি তার স্ত্রী জোয়ানকে নিজের জীবন থেকে চিরতরে সরিয়ে দেওয়ার জন্য পরিকল্পনা করে। নিজের মাথায় নানারকম প্ল্যান সাজায়। অপর দিকে জোয়ান নিজেও বসে নেই। সেও ভিক্টর বিহীন এক পৃথিবীর স্বপ্ন দেখে। যে সময়টায় ভিক্টর তার স্ত্রীকে খুন করার পরিকল্পনা করছে, ঠিক সে সময় জোয়ানও তার স্বামী’কে খুন করার জন্য ‘একটু একটু একটু’ করে পরিকল্পনা করে।
বইয়ের নামকরণ স্বার্থক করতেই যেনো ঘটে যায় একটা খুন। মজার ব্যাপার হচ্ছে, এই খুনে আষ্টেপৃষ্টে জরিয়ে যায় জোয়ানেত প্রেমিক ডন। বইয়ের নাম ‘দ্য পার্ফেক্ট মার্ডার’ হলেও মার্ডার’টা কিন্তু পার্ফেক্ট ভাবে হয় না। যার কারণে সেখানে মূল্যও দিতে হয় চড়া। দৃশ্যপটে যখন ভিক্টরের প্রেমিকা ক্যামিলার আগমন ঘটে তখনই খেলা আরো জমে উঠে।
ব্যক্তিগত মতামত: জমজমাট একটা মার্ডার মিস্ট্রি হিসেবে ‘দ্য পার্ফেক্ট মার্ডার’ খুব ভালো লেগেছে। স্ত্রিনরাইটার পিটার জেমস অল্প পৃষ্ঠায় খুব সুন্দর করে রহস্য, রোমাঞ্চ দিয়ে বইটা সাজিয়েছে। রহস্যের ধোঁয়াশা সৃষ্টিতে আরো খানিকটা ভূমিকা রেখেছে হঠাৎ উঠে আসা ভৌতিক আবহ। এই কথাটা কেনো বলেছি তা যদি ‘দ্য পার্ফেক্ট মার্ডার’ বইটা পড়েন তবেই বুঝতে পারবেন।
সবশেষে বলি, পিটার জেমস’র বেস্টসেলার এই বইটা থ্রিলারপ্রেমী পাঠকদের খুবই পছন্দ হবে।

দ্বিতীয়বারের মতো কোনো একটি বই রিভিউ দেওয়ার একটুখানি চেষ্টা করলাম। রিভিউ নিয়ে পরামর্শ দেওয়ার থাকলে দেওয়ার অনুরোধ রইলো৷ ভুল ত্রুটি ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন। ❤️
-দ্যা ম্যাজিক অব রিয়্যালিটি
মূল: রিচার্ড ডকিন্স
রূপান্তর : সিরাজাম মুনির শ্রাবণ
পৃথিবীর ইতিহাস অনেক পুরোনো৷ তার তুলনায় মানব ইতিহাস অতি সংক্ষিপ্ত। বুদ্ধিবৃত্তিক বিপ্লবের পর থেকে মানুষ চারপাশের অজানা নিয়ে ভাবতে থাকে। সন্তুষজনক ব্যাখ্যা না পেয়ে মানুষ বেছে নেয় অতিপ্রাকৃতিক, অদ্ভুত সব ব্যাখ্যা৷ যা শত শত বছর ধরে মানুষ বিশ্বাস করে আসতো।
–বাস্তবতা কী? আর জাদু কী? জগতে যা আছে তা-ই বাস্তব। যা বাস্তব তা-ই বাস্তবতা৷ আমরা পঞ্চ ইন্দ্রিয় ব্যবহার করে নির্ধারণ করতে পারি কোনটা বাস্তব। তবে যা পঞ্চ ইন্দ্রিয় দিয়ে দেখা যায় না বা অনুভব করা যায় না তার অস্তিত্ব কিভাবে পর্যবেক্ষণ করা যায়? কিংবা ওই আকাশের তারা, দূরদূরান্তের গ্রহ বা ছায়াপথ সমূহ৷ সেক্ষেত্রে ইন্দ্রিয়ের পরিসর বাড়াতে হয়। যন্ত্রপাতির সাহায্যে এদের অস্তিত্ব নিখুঁত ভাবে নির্ণয় করা সম্ভব৷
–জাদু অনেক ধরণের হতে পারে অতিপ্রাকৃত জাদু বা অলৌকিক জাদু, স্টেইজ মেজিক আর একটি হলো কাব্যিক জাদু৷ অলৌকিক জাদুর মধ্যে আছে এলাদিনের চেরাগের গল্প,হ্যারি পটার বা সিন্ডেরেলা কাহিনী গুলো৷ যা অসম্ভব। কোনো একটি কোমরা হতে পালকি বা গিরগিটিকে মনুষ্যরূপ দেওয়া যায় না। গল্প হিসেবে এইগুলো বেস্ট। কিন্তু ইতিহাসে এমন কিছু গল্পের অস্তিত্ব আছে যা মানুষ এখনো সত্য বলে মনে প্রাণে বিশ্বাস করে।
–রাত দিন কেন আছে বা শীতের পর গ্রীষ্ম কেন আসে? আলো-আধাঁর ও শীত গ্রীষ্মের নিয়মিত আবর্তন সম্পন্ন হয় বলে এতে মানুষের আগ্রহ জন্মের ছিল বহুকাল আগে। আগ্রহী মানুষ এদের নিয়ে সৃষ্টি করে নানা পৌরাণিক গাল-গল্প। কেউ মনে করতো সূর্য হচ্ছে সোনালি এক ঘোড়ার গাড়ি (রথ) যা কোনো দেবতা প্রতিদিন পূর্ব থেকে পশ্চিম দিকে চালিত করে। কেউবা মনে করে সূর্য একটি বিশাল ডিমের কুসুম।গ্রীষ্ম ও শীত নিয়ে কানাডীয়,গ্রিক উপকথার অন্ত নেই৷ এখনকার সময়ে আমাদের আছে সঠিক বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা। দিনের পর রাতের আগমন, গ্রীষ্মের পর শীতের আগমনের একটি নিখুঁত ব্যাখ্যা আমরা চাইলেই জেনে নিতে পারি।
–আগেকার মানুষ কতটা কাল্পনিকতায় বিশ্বাসী ছিল তা তো জানলেন। কিন্তু অবাক করার মতো ব্যাপার হচ্ছে বর্তমান যুগে আমেরিকায় এমন অনেক মানুষ আছে কাল্পনিকতা কে প্রশ্রয় দেয়। এদের মধ্যে সায়েন্স ফিকশন প্রেমী বেশি। (এরা স্টার ট্রেক জাতীয় চলচিত্রের ভক্ত) তারা দাবী করে এলিয়েন তাদের অপহরণ করে নিয়ে গিয়েছিল। কেউ কেউ ভাবে তারা এলিয়েন কতৃক পৈশাচিক সায়েন্টিফিক এক্সপেরিমেন্টের ভিক্টিম।
সাধারণত এদের অনেকে কল্পনা প্রেমী৷ সারাক্ষণ এসব নিয়ে ভাবলে ভ্রান্তি বা বিভ্রম তো হবেই৷ তাছাড়া বর্তমান প্রযুক্তি ব্যবহার করে মস্তিষ্কের False memories ইনপুট করা সম্ভব৷
–গতকাল সিলেটের মাটি একাধিকবার কেপে উঠে৷ অনেকে তো এই ভাবছে এটি কোনো পাপাচারের ফল। ইতিহাসে ভূমিকম্প নিয়ে কম গল্প পাতা হয়নি। সাডোম আর গোমোরাহের নগর ধ্বংস হয়েছি ভূমিকম্পে। আগেকার জাপানিরা বিশ্বাস করতো তাদের ভূখন্ডের অবস্থান একটি বিশাল মাগুর মাছের পিঠের উপর৷মাছটি নড়কে ভূমি প্রকম্পিত হয়।
ভূমিকম্প কিংবা কারো সঙ্গে অশুভ ঘটনা কোনো উদ্দ্যেশ্যে ঘটে না৷ এর পিছনে থাকে একটি কারণ। টেকটোনিক প্লেটের সঞ্চালণের ফলে হয় ভূমিকম্প। এর সঞ্চালণ ঘটে তলদেশের গলিত ম্যান্টলের পরিচালন প্রবাহের কারণে৷
–মানুষ গল্প বলতে ভালোবাসে৷ অন্য থেকে শোনা গল্প হোক না কেন৷ তাল থেকে তিল হয়ে পাঁচ বাড়ি ছড়ায়। একটি গল্প অন্যকে শোনাতে গেলে হয়তো আপনিও একটু রঙ চঙ মাখেন। এভাবে সৃষ্টি হয় গুজব। কয়েক দশক পর সেই গল্প থেকে নতুন গল্পের আবির্ভাব হয়।
সত্যি কথা বলতে,অতিপ্রাকৃতিক কোনো বিষয়কে প্রশ্রয় দেওয়া ঠিক নয়। আজ না হয় কাল আজ যা অজানা তার রহস্য একদিন না একদিন বের হবেই। অলৌকিকতার ব্যবচ্ছেদে স্কটিশ চিন্তাবিদ ডেভিড হিউমের একটি নীতি বা ছাঁকনি আছে। যা দিয়ে সুন্দরভাবে আপনিও চারপাশের কিছু অতিপ্রাকৃতিক গল্পের ব্যবচ্ছেদ করে ফেলতে পারেন৷
—রিচার্ড ফাইম্যানের জীবনের একটি গল্প বলি। তার স্ত্রী ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মারা যায়। হাসপাতালে স্ত্রীর কেবিনে একটি ঘড়ি ছিল। যে সময় তিনি মারা যায় সে সময়ে ঘড়িটি বন্ধ হয়ে যায়। অলৌকিক না? আমি হলে তা-ই ভেবে বসে থাকতাম। পদার্থবিদ রিভার্ড ফাইম্যান তো আর গোবর মাথায় নিয়ে হাঁটেন না। তিনি এর পিছনে যৌক্তিক ব্যাখ্যা খুঁজতে লাগলেন।
কোনো সন্তোষজনক ব্যাখ্যা না পাওয়া গেলেও তিনি কি এটি অলৌকিক ভেবে বসে থাকতেন? অবশ্যই না। ভাবুন তো তখনকার সময়ে প্রতি রাতেই বিশ্বে হাজার হাজার মানুষের প্রাণ যায়। থেমে যায় হাজার হাজার ঘড়ির কাটা।
—যিশু খ্রীষ্টের পানিকে ওয়াইনে রূপান্তর করার গল্পতো লাখো খ্রীষ্টান বিশ্বাস করে। যদিও তারা সিন্ড্রেলার গল্পে বিশ্বাস করেন না। পানির অণু H2O যদি কোনো ব্যক্তির প্রভাবে ওয়াইনে পরিণত হতে পারে তবে মিষ্টি কুমড়া কেন পালকিতে নয়?
—ইতিহাসের গ্রন্থ সমূহ ঘেটে আপনি রঙধনু, সূর্য, প্রাণীজগৎ সব বিষয়ে পৌরাণিক কাহিনী পেলেও কিছু বিষয় নিয়ে সেই গল্প গুলো পাবেন না। আমাদের চোখের আড়ালে রয়ে যায় ক্ষুদ্র একটি জগৎ। যা দেখতে আমাদের প্রযুক্তির সাহায্য নিতে হয়। ব্যাকটেরিয়া, ভাইরাস, অনুজীব নিয়ে কোনো পৌরাণিক কাহিনী খুঁজে পাবেন না৷ কারণ প্রাচিন সেইসব মানুষের ধারণাতেই আসেনি এই জগৎ।এত বড় সকল দিক দিয়ে বিস্তৃত জগৎটিকে আর যাই হোক একেবারেই উপেক্ষা করে যাওয়া যায় না।
–সত্য আসলে অনেক সুন্দর। যা কল্পিত উপকথাকে হার মানায়। বিজ্ঞানের সত্যের সৌন্দর্যতা অলৌকিক রূপকথাকেও হার মানায়।

See also  যুক্তিফাঁদে ফড়িং চমক হাসান pdf free download | Juktifade foring pdf download

আজকে আপনাদের অনুরোধের বই গণিত শেখার বই PDF Download | Bengali Mathematics Book PDF Download লিংক দিয়েছি। আশা করি আপনাদের উপকার হয়েছে।

ADR Dider

This is the best site for all types of PDF downloads. We will share Bangla pdf books, Tamil pdf books, Gujarati pdf books, Hindi pdf books, Urdu pdf books, and also English pdf downloads.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
You cannot copy content of this page